শুক্রবার, ২৯ জুন, ২০১৮

ডিজিটাল যুগে রোমান্টিকতা

ফেসবুক অধুনা কালে রোমান্টিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে ইনট্রোডিউসিং মাধ‍্যম হিসেবে কাজ করছে। এটা ট্র‍্যাডিশনাল ডেটিংয়ের বিকল্প নয়।

নারী-পুরুষ সম্পর্ক দেশ ও কাল ভেদে ভিন্ন রকম হয়ে থাকে। ইউরোপিয়ান প্রেম আর সাউথ এশিয়ান প্রেম এক নয়। তবে মজার ব্যাপার ব্রেন সিস্টেম সব জায়গায় সব সমাজে এক‌ই কায়দায় ভালবাসার সুরে আন্দোলিত হয়। একজন প্রাপ্তবয়স্ক প্রজননক্ষম নরের কাছে নারীর অবস্থান তৈরি করুন। আদিম ব্রেন সিস্টেম একশনে চলে আসবে। মস্তিষ্কের নিউরোট্রান্সমিটার নিঃসরণ ভলান্টারিলি হবে। এখন মানুষ কেন আচরণগত তফাৎ দেখায়? কারণ একটাই। খোদা তায়ালা মানুষকে বানরের চেয়ে বুদ্ধিমান করে পাঠিয়েছেন।

গত দশ-বারো বছরে মানুষের ইন্টারনেট নির্ভর ইন্টার‍্যাকশনে অনেক নতুন শব্দের যোগ হয়েছে। একটি কোম্পানি ফেসবুক কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও এলগরিদমের মারপ্যাঁচে কোটি কোটি মানুষের পিপল টাইম রিপ্লেস করে ফেলছে স্ক্রিন টাইম দিয়ে। এখানে বিবেচ‍্য বিষয় কোয়ালিটি সময় কি পার করছে স্ক্রিন টাইমে নাকি ডোপামিন ড্রাইভেন অর্থহীন সময় পার? বলাই বাহুল্য ফেসবুকের প্রতিটি ইন্টার‍্যাকশনের বিপরীতে ডোপামিন নিউরোট্রান্সমিটারের স্রোত শরীরে বয়ে চলে। রিসার্চ স্টাডি বলে ফেসবুক ব্যবহার ত‍্যাগ করা ধুমপান ত্যাগ করার চেয়েও কঠিন।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন