সোমবার, ৪ জুন, ২০১৮

রুদ্রমন (কবিতা)

রুদ্রমন কবিতাটি পৃথিবীর অর্ধেক অর্থাৎ ৫০% প্রাচুর্য বা অর্থবিত্তের অধিকারী ৮ জন মতান্তরে ৬২ জন ধণাঢ‌্য ব‌্যক্তিবর্গকে উৎসর্গ করে লিখা হয়েছে।

রুদ্রমন

কিনে নেবো জগত, বিলিয়ে দিবো সব
আমিই তো রাজাধিরাজ।
ভেঙ্গে ফেলবো মাকড়সার যত জাল
করুক না কানাকানি পাছে আমার।

আজ যে চেয়ে আছে শত কাজ
ছোঁয়া পেতে ব‌্যস্ত দু’হাত আমার।
সময় যে খুবই কম আজ, কর্মবীর তাকায় 
বিশ্রাম, ভুলেও পড়ে না মনে তাই।


সারমর্ম:

যেহেতু অর্ধেক সম্পদের ডলার স্ট্রিটে ৭০০ কোটি মানুষ বসবাস করে বৈষম‌্যের যাঁতাকলে, তাই বিশ্বের বাকি অর্ধেকের অধিকারী ধণাঢ‌্য হাতেগোনা ব‌্যক্তিবর্গ একদিন স্বপ্ন দেখছে পৃথিবীতে আর্থিক বিভাজন তুলে দিতে। এখানে মাকড়সার জাল বলতে বোঝানো হয়েছে বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন আর্থিক ব‌্যবস্থাকে যেগুলো রাষ্ট্র, নীতিনির্ধারকরা, ব‌্যাংকিং ব‌্যবস্থা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে এবং সাধারণ মানুষ কখনও বিজনেজ সাইকেল ও অর্থনীতির বুম-রিসেশন দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। কবিতাটির দ্বিতীয়াংশে একাউন্টিবিলিটি এবং জাস্টিসের উপর ধণাঢ‌্যদের অনমনীয়তাকে জোর আরোপ করা হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন