শনিবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০১৮

স্বপ্নবৃক্ষ

স্বপ্নবৃক্ষ

একটি 🌲 যার পাতায় পাতায় স্বপ্ন
রোদেলা দুপুরে সোনালী আলোয় কল্পতরু।
রাতের জোছনায় নির্ঘুম রজনীতে বুনিত
স্বপ্নেরা পাখা মেলে সাদা পরীর বেশে।

অনেক রকম মানুষের হরেক রকম স্বপ্ন,
লাল-নীল-সবুজ কিংবা হলুদ; হোক না কেউ বর্ণান্ধ।
স্বপ্নেরা বাঁধে বাসা ঝাঁকে ঝাঁকে আপন গৃহডোরে,
সময় সেতো স্মৃতির সেলুলয়েডে রূপালী উপাখ্যান।

পথিকের কি আসে যায় যদি,
স্বপ্নের দেয়াল কখনও হয় অম্লমধুর?
ওরে! ছিদ্রান্বেষীর দল, স্বপ্ন বাড়ি নেবে অদৃষ্ট;
থাকুক পেছনে কায়ক্লেশে নিন্দুকের মূল‍্যহীন অনুভূতি।

স্বপ্ন যখন ময়ূরপেখম মেলে,
বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের মাকড়সার জাল হয়ে যায় সারা।
এক পশলা বৃষ্টি শেষে স্বপ্নবৃক্ষের পাতারা দ‍্যুতি মেলে
বিন্দু বিন্দু জলকণায় ভর করে সপ্তবর্ণের ঝলকানি।

স্বপ্নে বাঁচে মানুষ, স্বপ্ন বাঁচায় আগামী,
আর শতকোটি স্বপ্নেরা বাঁচায় ধরিত্রী;
স্বপ্নবৃক্ষ, সে তো বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের কেন্দ্রকে ঘিরে
মানসপটের স্বপ্নের ষড়‌ঋতু, স্বপ্নের সুতিকাগার।



কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন