রবিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯

স্বপ্নবৃক্ষ-২ (স্বরচিত কবিতা)

স্বপ্নবৃক্ষ-২

আফ্রিকার ঘন বনে লুসির প্রথম ভালবাসা
আদি মানবের মনে জাগালো আশা।
স্নায়ুর ত্রিধারায় উঠলো নেচে প্রয়োজন
সৃষ্টি সুখের উল্লাসে রচিল ভবিষ‌্যতের আয়োজন।

নেমে এলো অহংকার, শিখলো সে মরতে-মারতে
আঁখিপল্লবে যে, কেমনে তারে হাতছাড়া করি দিনান্তে?
ওদিকে যে প্রাণপাখি কয় ছন্দে ছন্দে
“ছেড়ে দেরে, দেরে আমায় ছেড়ে দেরে দেরে
যেমন ছাড়া বনের পাখি মনের আনন্দে!”

লক্ষ বছর আগে গলায় ঝুলিয়ে সন্তানেরে
লাফায় লুসি বৃক্ষের ডালে আর কোটরে।
দিন যায়, মাস যায়; যায় বছর-শতাব্দী-সহস্রকাল
অস্থির জলবায়ু নিয়ে এলো লুসির কপালে আকাল।
মরুর বালুকা মরীচিকাময় ময়দান
আদি মানব হলো যে দু’পায়ে দণ্ডায়মান।
এক হাতে নিয়ে সন্তানেরে, অন‌্য হাতে ছুঁড়ে পাথর
আদি মানবীর দুর্দান্ত সাহসিকতায় যেন ভূতের আছর!

বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের কেন্দ্রে বসি আধুনিক প্রেয়সী
পাবো বলে জীবনের শ্রেষ্ঠ পুরস্কার বাজায় সে বাঁশি।
অন্ধ, অতিমূল‌্যায়িত ভালবাসা বেঁচে থাক অনন্তকাল
 স্নায়ুর ত্রিধারায় স্পন্দন করোটিতে বয়ে যাক চিরকাল।
সেন্টিনেল আইল‌্যান্ড থেকে সেন্ট হেলেনা
জয় হোক নবপ্রেমের, যেথায় থাকুক তুলনাহীনা।

দাঁতের ব‌্যথায় মরি বলে যে রসিক!
মন দিয়ে মন পাওয়া সহজ না প্রেমিক।
হয় না মানুষ কভু এত অসহায়
নির্লিপ্ত প্রেয়সী করে যখন নিরুপায়।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন